ইনানী সমুদ্র সৈকত

কক্সবাজার থেকে টেকনাফ পর্যন্ত দীর্ঘ প্রায় ১২০ কিলোমিটার সমুদ্র সৈকতের মধ্যে সবচেয়ে সুন্দর, আকর্ষণীয় ও নয়নাভিরাম হচ্ছে ইনানী সমুদ্র সৈকত বা ইনানী বীচ (Inani Beach)। ইনানী বীচ থেকে শুরু করে টেকনাফ পর্যন্ত রয়েছে প্রচুর প্রাকৃতিক প্রবাল পাথর। এইসব পাথর একদিকে সমুদ্রের ভাঙ্গন থেকে সৈকতকে রক্ষা করে চলেছে। আবার দিয়েছে বাড়তি সৌন্দর্য।

ইনানী বীচ কোথায় অবস্থিত?
ইনানী বীচ কক্সবাজার শহর থেকে প্রায় ২৭ কিলোমিটার দক্ষিণে ও হিমছড়ি থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এখানকার প্রধান আকর্ষণ জীবন্ত প্রবল। অনেকটাই পাথরের মতো দেখতে এই প্রবল গুলো খুবই সুন্দর। কক্সবাজারের মতো এখানে বড় বড় ঢেউ নেই। ছোট ছোট ঢেউ এসে আছড়ে পরে পাথরের উপর। পানির উপর ভাসমান এইসব পাথরের উপর দাঁড়িয়ে পা ভেজাতে দারুন মজা।

ইনানী বীচ কিভাবে যাবেন?
ইনানী বীচ দেখতে হলে আপনাকে প্রথমেই আসতে হবে কক্সবাজার শহরে। ঢাকা থেকে বাস, প্লেন, ট্রেন ইত্যাদি বিভিন্ন উপায়ে কক্সবাজার আসা যায়। সেখান থেকে মেরিন ড্রাইভ রোড দিয়ে চলে যাবেন ইনানী বীচ। কক্সবাজার শহরের সুগন্ধা পয়েন্টে ইনানী বীচ যাবার জন্য খোলা জীপ, মাইক্রোবাস, সিএনজি, অটো ইত্যাদি পাওয়া যায়। পছন্দ মতো দরদাম করে ভাড়া করে নিবেন। তবে খোলা জীপ বা চাঁন্দের গাড়িতে ঘুরেই বেশি মজা। ইনানী পর্যন্ত খোলা জীপ ভাড়া নিবে ১২০০ থেকে ১৫০০ টাকা। ১০ ঠিক ১২ জন অনায়াসে যেতে পারবেন।

ইনানী কখন যাবেন?
যেকোনো সময়েই ইনানী বীচ যাওয়া যায়। তবে সব থেকে ভালো হয় বিকালে গেলে। ওই সময় ভীড় একটু কম থাকে। আর ইনানী বীচ থেকে সূর্যাস্ত দেখতে দারুন লাগে।

কোথায় থাকবেন
এখন ইনানী বীচের আশেপাশে কিছু হোটল ও রিসোর্ট আছে। তার মধ্যে রয়েল টিউলিপ রিসোর্ট, ইনানী রয়াল রিসোর্ট, লা বেল্যা রিসোর্ট উল্লেখযোগ্য। তবে ইনানী কক্সবাজার থেকে অনেক কাছেই হওয়ায় সেখানে না থেকে কক্সবাজার এসে কোন হোটেলে থাকাই ভালো হবে।

0 0 vote
রেটিং
Subscribe
Notify of
guest
0 কমেন্টস
Inline Feedbacks
View all comments
You cannot copy content of this page
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x