রংপুর বিভাগ

তেঁতুলিয়া থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা

কাঞ্চনজঙ্ঘা
কাঞ্চনজঙ্ঘা
কাঞ্চনজঙ্ঘা
Shadow
Slider

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া থেকে পৃথিবীর তৃতীয় সবোর্চ্চ পবর্তশৃঙ্গ কাঞ্চনজঙ্ঘা (Kanchenjunga) দেখা যায়। আশেপাশের আরো কয়েকটি জেলা থেকে দেখা গেলেও তেঁতুলিয়া থেকেই সব থেকে ভালো দেখা যায়। তাই প্রতিবছর প্রচুর পর্যটক ভিড় করে এখানে।

কাঞ্চনজঙ্ঘা কোথায় অবস্থিত

কাঞ্চনজঙ্ঘা যৌথ ভাবে ভারত এবং নেপালে অবস্থিত। কাঞ্চনজঙ্ঘা পৃথিবীর তৃতীয় সবোর্চ্চ পবর্তশৃঙ্গ। এর উচ্চতা উচ্চতা ৮,৫৮৬ মিটার বা ২৮,১৬৯ ফুট।

কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখার সময়

বাংলাদেশ থেকে সারাবছর কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যায় না। সাধারণত অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি থেকে নভেম্বর মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যায়। তবে এর জন্য অবশ্যই আকাশ পরিষ্কার এবং মেঘ মুক্ত থাকতে হবে। কেবল সেই সময়ই কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যায়।

কোন জায়গা থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা ভালো দেখা যায়

উত্তবঙ্গের কয়েকটি জেলা থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা গেলেও তেঁতুলিয়া থেকেই সব থেকে ভালো দেখা যায়। তেঁতুলিয়া উপজেলার বাংলাবান্ধা, তেঁতুলিয়া বাইপাস, তেঁতুলিয়া ডাকবাংলো, ভজনপুর করতোয়া সেতু ইত্যাদি ফাঁকা স্থান থেকেই দেখা যায় কাঞ্চনজঙ্ঘা। খুব সকালে মেঘ এবং কুয়াশামুক্ত আকাশে খালি চোখেই দেখা যায়। তবে পঞ্চগড়ের ভিতরগড় এলাকা থেকে সব থেকে ভালো দেখা যায়।

কিভাবে যাবেন

ঢাকা থেকে হানিফ এন্টারপ্রাইজ, নাবিল পরিবহন, এনা পরিবহন ও শ্যামলী ইত্যাদি পরিবহন কোম্পানির এসি/নন-এসি বাস সরাসরি যায় তেঁতুলিয়া বা বাংলাবান্ধায়। ভাড়া ৭০০/১,০০০ টাকা। এছাড়া পঞ্চগড় এসে সেখান থেকেও যেতে পারেন তেঁতুলিয়া। কম খরচে পঞ্চগড় থেকে তেঁতুলিয়া বাসে যাওয়া যায়। ভাড়া ৪০/৫০ টাকা। পঞ্চগড় বাসস্টেশন এবং চৌরঙ্গী মোড় থেকে সারাদিনের জন্য প্রাইভেট কার, মাইক্রো বাস ভাড়া পাওয়া যায়। ভাড়া ২,০০০/৩,০০০ টাকা। একটা ভাড়ায় নিয়ে পঞ্চগড়ের বিভিন্ন স্থাপনা ঘুরে দেখতে পারেন।

ঢাকা থেকে পঞ্চগড় ট্রেনেও যেতে পারেন। ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস রাত ১০:৪৫ মিনিটে, একতা এক্সপ্রেস সকাল ১০ টায়, দ্রুতযান এক্সপ্রেস রাত ৮ টায় ছেড়ে যায়। ভাড়া ৫৫০/১,৯৪২ টাকা। সময় নিবে ৮/১০ ঘন্টা।

এছাড়া আকাশপথে সৌয়দপুর পর্যন্ত এসে সেখান থেকে বাস বা প্রাইভেট কার নিয়ে যেতে পারেন তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধা। প্রতিদিন বিভিন্ন এয়ারলাইন্স কোম্পানি ঢাকা – সৌয়দপুর রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করে।

কোথায় থাকবেন

তেঁতুলিয়ায় সরকারি তিনটি ডাকবাংলো আছে। তবে এখানে থাকতে হলে আগে থেকেই উপজেলা বা জেলা প্রশাসনের অনুমতি নিতে হবে। ডাকবাংলো তে ৯টি বেড আছে, যেখানে সর্বোচ্চ ১৮ জন থাকতে পারেন। ডাকবাংলো থেকে শিলিগুড়ি, দার্জিলিং, হিমালয়, এভারেস্ট ও কাঞ্চনজঙ্ঘার অপরূপ দৃশ্য দেখা যায়।

এছাড়া তেঁতুলিয়ায় কিছু বেসরকারি হোটেল আছে। কাজী ব্রাদ্রার্স এবং সীমান্ত পার তাদের মধ্যে অন্যতম। প্রতি রুমের ভাড়া ৫০০/১,০০০ টাকা। অথবা পঞ্চগড় এসেও থাকতে পারেন। এখানে বেশ কিছু হোটেল আছে।

হাতে সময় থাকলে দেখে যেতে পারেন ঐতিহ্যবাহী জেলা দিনাজপুরের বিখ্যাত কিছু স্থাপনা।

5 1 ভোট
রেটিং

লেখক

রাশেদুল আলম

আমি একজন সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, ট্রাভেল ফটোগ্রাফার। তথ্য-প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করলেও ঘুরে বেড়াতে ভীষণ ভালোবাসি। নিজের ভ্রমণ অভিজ্ঞতা এবং জ্ঞান কে এই ওয়েব সাইটে নিয়মিত শেয়ার করার চেষ্টা করি।

1 মন্তব্য
Inline Feedbacks
সব মন্তব্য দেখুন
''
1
0
আমরা আপনার অভিমত আশা করি, দয়াকরে মন্তব্য করুনx
()
x